ইয়েমেন

ইয়েমেন সংকটের সমাধানে নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি তুলে ধরেছে ইরান। দেশটি চায় ইয়েমেন সংকটের সমাধান হোক রাজনৈতিকভাবে বিদেশি কোনো শক্তির হস্তক্ষেপ ছাড়া।

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রাজনৈতিকবিষয়ক জ্যেষ্ঠ এক উপদেষ্টা ইয়েমেন সংকট নিয়ে দেশটির অবস্থান পরিষ্কার করেন। তেহরানে ইয়েমেনের রাষ্ট্রদূত ইব্রাহিম মুহাম্মদ আল-দাইলামির সঙ্গে  ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রীর রাজনৈতিকবিষয়ক জ্যেষ্ঠ উপদেষ্টা আলি  আসগর খাজি রোববার বৈঠক করেন।

এ দুই কূটনীতিক ইয়েমেনের বর্তমান পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনায় গুরুত্ব পায় আরব দেশটির বর্তমান রাজনৈতিক পরিস্থিতি ও সংকটের বিষয়ে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দৃষ্টিভঙ্গি নিয়েও।

তারা ইয়েমেনের অখণ্ডতা, স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব রক্ষার প্রয়োজনীয়তার ওপর জোর দেন।

ইয়েমেনি জনগণের সমস্যার সমাধান এবং অবরোধ অপসারণের আহ্বান জানিয়ে খাজি বলেন, এটি যুদ্ধবিরতি এবং সংকটের রাজনৈতিক নিষ্পত্তির ওপর নির্ভর করবে।

ইরানের এই কূটনীতিক আরও বলেন, যে কোনো রাজনৈতিক সমাধান অবশ্যই বিদেশি হস্তক্ষেপমুক্ত এবং ইয়েমেনের নাগরিকদের ইচ্ছার ওপর ভিত্তি করে হওয়া উচিত।

২০১৫ সালের মার্চে সৌদি আরবের নেতৃত্বাধীন জোট ইয়েমেনে হুথি আনসারুল্লাহ আন্দোলনের ওপর হামলা শুরু করে। দেশটির চাওয়া, সাবেক প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মনসুর হাদিকে ক্ষমতায় বসানো।

এ যুদ্ধে এখন পর্যন্ত হাজার হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে। যার অধিকাংশই বেসামরিক নাগরিক। যাকে জাতিসংঘ বিশ্বের সবচেয়ে বাজে মানবিক সংকট হিসেবে অভিহিত করেছে।

আরো পড়ুন: তুরস্কের সঙ্গে তালেবানের প্রথম বৈঠক