ইসরাইলের

ফিলিস্তিন বংশোদ্ভূত মার্কিন কংগ্রেসের নারী সদস্য রশিদা তালিব আমেরিকান মুসলিমস ফর প্যালেস্টাইন নামে একটি সংগঠনের অনুষ্ঠানে ইসরাইলের বিরুধে মন্তব্য করে বলেন, মার্কিন এমপিরা ধীরে ধীরে ইসরাইলের বর্বরতার বিরুদ্ধে দাঁড়াচ্ছেন এবং মানবতার পক্ষে অবস্থান নিচ্ছেন। খবর আরব নিউজের।

সম্প্রতি ইসরাইলি দখলদারিত্বের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য মার্কিন কংগ্রেসে একটি চিঠি দেন। এতে প্রথমে সমর্থন দেন কংগ্রেস সদস্য মার্ক পোকান। এর পর আরও ১০ মার্কিন কংগ্রেসের সদস্য ওই চিঠিতে সই করেন।

মুসলিম এ সংগঠনটি ইহুদিবাদীদের দখলদারী বন্ধের দাবিতে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ‘ইফনটনাউ’ নামে একটি সামাজিক আন্দোলনের ওয়েবসাইট উদ্বোধন উপলক্ষ্যে সম্প্রতি এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। কংগ্রেস সদস্য রশিদা তালিব ওই অনুষ্ঠানেই এ কথা বলেন।

পরে ওই চিঠি নিয়ে তারা মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী অ্যান্তোনি ব্লিনকেনের সঙ্গে সাক্ষাৎ করে ইসরাইলের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের একপেশে নীতি পরিহার করে ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে চালানো মানবতাবিরোধী অপরাধ বন্ধ করার আহ্বান জানান।

রশিদা তালিব মার্কিন কংগ্রেসের প্রথম মুসলিম নারী। তিনি একজন ফিলিস্তিনি, সেটিও মার্কিন কংগ্রেসের ইতিহাসে প্রথম।

আরো পড়ুন- যুক্তরাষ্ট্রে একই পরিবারের ৬ বাংলাদেশির লাশ উদ্ধার

আইনজীবী ও নাগরিক অধিকারকর্মী রশিদা মিশিগানে কোনো অপরিচিত নাম নয়। ডেমোক্র্যাটিক পার্টির প্রগতিশীল অংশের সদস্য ৪৪ বছর বয়স্ক রশিদা ২০০৮ সালে মিশিগান রাজ্য আইন পরিষদের প্রথম মুসলিম নারী সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হয়ে ইতিহাসের পাতায় নাম লেখান।

উল্লেখ্য, ১৯৬৭ সালে ৬ দিনের আরব-ইসরাইল যুদ্ধের পর থেকে আন্তর্জাতিক নিয়মনীতির তোয়াক্কা না করে গাজা, পশ্চিমতীর ও পূর্ব জেরুজালেমের একের পর এক ফিলিস্তিনি এলাকা দখল করে সেখানে অবৈধ ইহুদি বসতি গড়ছে ইসরাইল।