আল্লামা শাহ আহমদ শফী
আল্লামা শাহ আহমদ শফী

আল্লামা শাহ আহমদ শফীকে হত্যার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) দেওয়া প্রতিবেদন গ্রহণের শুনানি পেছাল।

আগামী বছরের ২ মার্চ এ মামলার পরবর্তী শুনানির জন্য দিন ধার্য করেছেন আদালত। রোববার চট্টগ্রামের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. শহীদুল্লাহ কায়সার এ আদেশ দেন।

গত বছরের ১৮ সেপ্টেম্বর ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হাটহাজারী মাদরাসার পরিচালক ও হেফাজতের আমীর আহমদ শফী। মৃত্যুর আগের দিন মাদ্রাসায় তুমুল হট্টগোলের মধ্যে শফী মহাপরিচালকের পদ ছাড়েন। তার ছেলে মাদ্রাসার সহকারী পরিচালক আনাস মাদানিকেও বহিষ্কার করা হয়।

আহমদ শফীর মৃত্যুর পর পরিবার অভিযোগ তোলে, পদ ছাড়ার দিন দিন হট্টগোলের সময় শাহ আহমদ শফীকে মানসিক নির্যাতন করা হয়। এ কারণে তার মৃত্যু হয়েছে। পরে ১৭ ডিসেম্বর চট্টগ্রামের আদালতে হত্যার অভিযোগে নালিশি মামলা করেন তার শ্যালক মোহাম্মদ মঈন উদ্দিন।

মামলায় হেফাজতের ৩৬ নেতা-কর্মীকে আসামি করা হয়। আদালত মামলাটি তদন্তের জন্য পিবিআইকে নির্দেশ দেন। এরপর চলতি বছরের ১২ এপ্রিল পিবিআই মোট ৪৩ জনকে অভিযুক্ত করে প্রতিবেদন দেয়। এর মধ্যে মামলার আসামি হেফাজতের সাবেক আমির জুনায়েদ বাবুনগরী গত ১৯ আগস্ট মারা যান।