আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সড়ক পরিবহন সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, আগামীকাল সোমবার থেকে সারাদেশে গণপরিবহন বন্ধ থাকবে।

আজ রোববার তার সরকারি বাসভবনে সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আয়োজিত নিয়মিত সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রী এ কথা বলেন।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘আগামীকাল থেকে গণপরিবহন বন্ধ থাকবে। তবে পণ্য পরিবহন, জরুরি সেবা, জ্বালানি, ঔষধ, পচনশীল ও ত্রাণবাহী পরিবহন, সংবাদপত্র, গার্মেন্টস সামগ্রী এ নিষেধাজ্ঞার আওতামুক্ত থাকবে।’ আজ সকালে এ ঘোষণাপত্রে স্বাক্ষরও করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মূলত কালকের ওই ঘোষণার পর থেকেই নগরজীবনে একধরনের পরিবর্তন লক্ষ করা যাচ্ছে। অনেকেই নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। লকডাউন এড়াতে ও কর্মহীন হয়ে আটকা পড়ার ভয়ে অনেকেই ঢাকা ছাড়ছেন। রাজধানী ঘুরে দেখা গেছে বাস, ট্রেন ও লঞ্চে যাত্রীদের উপচেপড়া ভিড়।

এ ছাড়া শনিবার (৩ এপ্রিল) লকডাউনে জরুরি খাদ্যবাহী ট্রেন ছাড়া সব প্রকার যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল বন্ধের কথা জানান রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। গত বছরের মতোই লকডাউনে শুধু পণ্যবাহী মালগাড়ি চলবে জানিয়ে তিনি বলেন, প্রজ্ঞাপনে ঠিক যত দিনের জন্য লকডাউন জারি হবে, তত দিনই যাত্রীবাহী ট্রেন চলবে না।

আরো পড়ুন-  আজ থেকে শুরু জাটকা সংরক্ষণ সপ্তাহ

এদিকে, মহামারী করোনায় দেশে হু হু করে বাড়ছে মৃত্যু ও শনাক্ত। শনিবারের তথ্যানুযায়ী বিগত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ৫৮ জন। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯ হাজার ২১৩ জনে। এ ছাড়া ওই সময়ে শনাক্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৬৮৩ জন করোনা রোগী। যা নিয়ে দেশে এখন পর্যন্ত মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৬ লাখ ৩০ হাজার ২৭৭ জনে।