অস্ট্রেলিয়ায় ভয়াবহ দাবানলে দেশটির দুই অঙ্গরাজ্যে অন্তত ২৫০ বাড়ি পুড়ে গেছে। এর মধ্যে ভিক্টোরিয়া রাজ্যে ৪৩ টি ও নিউ সাউথ ওয়েলসে ২০০ বাড়ি পুড়ে গেছে বলে বিবিসি অনলাইন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মঙ্গলবার হাজারো মানুষ দাবানলের কারণে তাদের শহর ছেড়ে সমুদ্র পাড়ে আশ্রয় নিতে পারেনি।

তবে দাবানলের পরিস্থিতি কিছুটা কমেছে এবং ভিক্টোরিয়ার একটি ব্যস্ততম রাস্তা ২ ঘণ্টার জন্য পূনরায় খুলে দেয়া হয়েছে।

অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলের কারণে অন্তত তিনটি প্রদেশে সতর্কতা জারি আছে। এছাড়া বর্ষবরণের ছুটিতে অস্ট্রেলিয়ায় ভ্রমণ কার্যত নিষেধ করা হয়েছিল। কিন্তু তারপরও বহু পর্যটক সেখানে হাজির হন। এর ফলে অনেক পর্যটকই আটকা পড়েছেন পর্যটন এলাকাগুলোতে।

দেশটির সরকার জানিয়েছে, দাবানলের এলাকাগুলোতে উদ্ধারে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে। জরুরি প্রয়োজনে হেলিকপ্টারও ব্যবহার করা হবে। দাবানলে গতকাল পর্যন্ত আরো দুইজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়ালো ১২ জনে।

কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, ভিক্টোরিয়ায় আরো চারজন ও নিউ সাউথ ওয়েলসে একজন নিখোঁজ রয়েছে। তবে এত কিছুর পরও থেমে থাকেনি হ্যাপি নিউ ইয়ারের আতশবাজির কার্যক্রম।

স্থানীয় সময় ১২ টা ১ মিনিটে সিডনি হারবারসহ বিভিন্ন স্থানে আতশবাজির খেলা শুরু হয়। বিবিসি।