অভিনেত্রী লরেনের আত্মহত্যা

লরেনের আত্মহত্যা
অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস।

আত্মহত্যা করেছেন মডেল ও অভিনেত্রী লরেন মেন্ডেস। রোববার (৩০ আগস্ট) সকাল সাড়ে সাতটার দিকে বারিধারায় নিজের বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে তিনি আত্মহত্যা করেন।

সবে মাত্র শুরু করেছিলেন শোবিজে পথচলা, শুরুতেই নিজের লুক দিয়ে দর্শক মন জয় করেতে শুরু করেছিলেন, আর ঠিক তখনই তার মৃত্যুর খবর। বলা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছেন লরেন মেন্ডেস।  অথচ গত ২৬ আগস্ট একটি নাটকের শুটিং করছিলেন।

তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেল, আজ রবিবার সকাল আনুমানিক সাড়ে ৭টার দিকে নিজ বাসায় গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এই তরুণী। কেন, কি কারণে আত্মঘাতী হলেন তিনি এ বিষয়ে কিছুই জানা যায়নি এখনো।

উল্লেখ্য, ‘ইন্টারনেট শেষ হলেও, নো টেনশন’- এয়ারটেলের বিজ্ঞাপনে ব্যবহৃত এই সংলাপটি দিয়ে আলোচনায় আসেন লরেন। তার পুরো নাম লরেন মেন্ডেস, ধর্মে খ্রিষ্টান। ক্যারিয়ারের শুরুটা নানা পণ্যের ফটোশুট মডেল হিসেবে হলেও পরিচিতি পেয়েছেন বিজ্ঞাপন দিয়ে। এয়ারটেলের টানা কয়েকটি বিজ্ঞাপনে কাজ করে আলোচনায় চলে আসেন তিনি।

বিজ্ঞাপন ছাড়াও তাকে দেখা গিয়েছে মিউজিক ভিডিওতে। ‘ঘোর’ শিরোনামে তপু খান ও কণার একটি দ্বৈত গানের ভিডিওতে মডেল হিসেবে কাজ করেছিলেন তিনি।

 

1 মন্তব্য

Leave a Reply